মেঘ ঢাকা আলো/স্বজন হারানো স্বরলিপি


নির্ভীক চিত্তে—
না শুনে কৃষ্ণের বাঁশি
বার বেলায় রক্তিম রঙে
তুমি কেঁদেছিলে; কেঁদেছিলে—
পায়ে ঘুঙুর প'ড়ে। কোমরের
কিঙ্কিনী তোমার মত-ই অঝোরে
কেঁদেছিল মাঝ-রাতে।

কবিতার জলসায়
জলসার বিহগনুরে—
বহুরূপী বেশে বসন্ত নাচে গো…
প্রিয়া—।
গান গায়; সানাইয়ের সুর তুলে;
হৃদয়ে বাজে; একতাল, ত্রিতাল,
আরো কত কী যে পরিচিত হয়
অমায়িক জীবনে।
ভৈরবী,—ঠুংরী,—জলে তরঙ্গের
রিমি-ঝিমি বোল!
তালে—তালে নাচে সুর তুলে
স্বজনে হারানো স্বরলিপি॥