চিত্রবিচিত্র

চিত্রবিচিত্র

চিত্রবিচিত্র-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (page 1 crop).jpg

চিত্রবিচিত্র-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (page 3 crop).jpg



চিত্রবিচিত্র

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

বিশ্বভারতী লোগো

বিশ্বভারতী গ্রন্থনবিভাগ
কলিকাতা



প্রচ্ছদ-চিত্র : নন্দলাল বসু

প্রকাশ : শ্রাবণ ১৩৬১
সংস্করণ : ভাদ্র ১৩৬২, ফাল্গুন ১৩৬৩
পুনমুদ্রণ : পৌষ ১৩৬৬, মাঘ ১৩৬৯, মাঘ ১৩৭১
শ্রাবণ ১৩৭৪, পৌষ ১৩৭৬, ফাল্গুন ১৩৮১
বৈশাখ ১৩৮৭, অগ্রহায়ণ ১৩৯২
পৌষ ১৩৯৮

@ বিশ্বভারতী

প্রকাশক শ্রীসুধাংশুশেখর ঘোষ
বিশ্বভারতী। ৬ আচার্য জগদীশ বসু রোড। কলিকাতা ১৭

মুদ্রক স্বপ্না প্রিন্টিং ওয়ার্কস প্রাইভেট লিমিটেড
৫২ রাজা রামমোহন রায় সরণী। কলিকাতা ৯

‘সহজ পাঠ রচনার সমকালে (পৌষ ১৩৩৬) ছোটো ছেলেমেয়েদের আনন্দপ্রদ ও পাঠোপযোগী এমন কতকগুলি কবিতা লেখা হয় যেগুলি এ পর্যন্ত রবীন্দ্রনাথের কোনো গ্রন্থে সংকলিত হয় নাই। প্রধানত ঐ কবিতা ও ‘সহজ পাঠ’-এর কবিতা মিলাইয়া, সেইসঙ্গে কবির অপরিচিত বা অল্পপরিচিত অন্য কতকগুলি রচনা সাজাইয়া, ‘চিত্রবিচিত্র’ প্রকাশিত হইল। খুব অল্প বয়সের ছেলেমেয়েদের পড়িতে দিবার পক্ষে সরল অথচ সরস কবিতার সংগ্রহ হিসাবে ইহার উৎকর্ষ ও উপযোগিতা স্বতঃই প্রতিভাত হইবে।
 ‘সহজ পাঠ’ প্রথম ও দ্বিতীয় ভাগের কবিতা দিয়া এই সংকলনের সূচনা হইয়াছে। ইহার ফলে যুক্তাক্ষরবর্জিত অতি সরল ভাষা ও ভাবের পাঠ হইতে শুরু করিয়া, শিক্ষা অগ্রসর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে, ভাষায় ও ভাবে উত্তরোত্তর সমৃদ্ধতর যে পাঠ তাহাও আয়ত্ত করা সহজসাধ্য হইবে। আশা করা যায়, নূতন কবিতার অনুষঙ্গে ও নূতন পরিকল্পনার অঙ্গীভূত হইয়া, কবির পূর্বপরিচিত রচনাও একটি অপূর্বতা লাভ করিবে এবং যাহাদের জন্য এই গ্রন্থ সংকলন করা হইল তাহাদের আনন্দ-বিধান করিতে পারিবে।
 নূতন রচনাগুলি রবীন্দ্রসদন-সংগ্রহ-ভুক্ত নানা পাণ্ডুলিপি হইতে শ্রীকানাই সামন্ত সংগ্রহ করেন; বর্তমান গ্রন্থসংকলনের ভারও তাঁহাকে দেওয়া হইয়াছিল। ইতি শ্রাবণ ১৩৬১


শ্রীচারুচন্দ্র ভট্টাচার্য

লাইনো হরপে ছাপা না হইলে বিশ্বভারতী-প্রকাশিত রবীন্দ্রগ্রন্থাবলীতে, পদের প্রথম ব্যঞ্জনবর্ণ-আশ্রিত ' ্য্া' উচ্চারণ বুঝাইতে ` ে ' হরপটি ব্যবহৃত হয়। যেমন, “ভ্যাড়া’ শব্দটি ‘ভেড়া’ ছাপা হইতে পারে এবং 'যেন' 'কেন' উচ্চারণের দিক দিয়া ‘জ্যান’ ‘ক্যান’ এরূপ বুঝিতে হইবে।

এই লেখাটি বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত কারণ এটির উৎসস্থল ভারত এবং ভারতীয় কপিরাইট আইন, ১৯৫৭ অনুসারে এর কপিরাইট মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। লেখকের মৃত্যুর ৬০ বছর পর (স্বনামে ও জীবদ্দশায় প্রকাশিত) বা প্রথম প্রকাশের ৬০ বছর পর (বেনামে বা ছদ্মনামে এবং মরণোত্তর প্রকাশিত) পঞ্জিকাবর্ষের সূচনা থেকে তাঁর সকল রচনার কপিরাইটের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। অর্থাৎ ২০২১ সালে, ১ জানুয়ারি ১৯৬১ সালের পূর্বে প্রকাশিত (বা পূর্বে মৃত লেখকের) সকল রচনা পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত হবে।