নির্ঘণ্ট:ব্যায়াম শিক্ষা - প্রথম ভাগ - হরিশচন্দ্র শর্মা.pdf

ব্যায়াম শিক্ষা - প্রথম ভাগ - হরিশচন্দ্র শর্মা.pdf
নামব্যায়াম শিক্ষা উইকিউপাত্তে দেখুন ও সম্পাদনা করুন
খণ্ড
সংস্করণ
লেখকহরিশ্চন্দ্র শর্মা Reasonator small logo wider white stripes.svg
প্রকাশস্থানকলকাতা
প্রকাশসাল১৮৭৩ খ্রিস্টাব্দ (১২৮০ বঙ্গাব্দ)
উৎসIcon pdf.svg BookReader-favicon.svg
প্রগতিওসিআর ও মুদ্রণ সংশোধনের জন্য প্রস্তুত

বইয়ের পাতাগুলি

সূচিপত্র।

সংখ্যা। ব্যায়ামের সংখ্যা। নাম। পৃষ্ঠা।
উপক্রমণিকা।
ব্যায়ামের ফল।
পরিচ্ছদ।
আহার।
ব্যায়ামের বিধান।
দুর্ঘটনার চিকিৎসা।
দণ্ডায়মান হওয়া।
চলন।
দৌড়ান।
১০ লম্ফ দেওয়া (লাফান)। ১০
১১ সম্মুখে ঊর্দ্ধ লম্ফন। ১১
১২ বাম পার্শ্বে ঊর্দ্ধ লম্ফন। ১২
১৩ দক্ষিণ পার্শ্বে ঊর্দ্ধ লম্ফন। ১৩
১৪ পশ্চাতে ঊর্দ্ধ লম্ফন। ১৪
১৫ সম্মুখে পরিসর লম্ফন। ১৫
১৬ সম্মুখে অধো-লম্ফন। ১৬
১৭ ১০ সম্মুখে মিশ্র লম্ফন। ১৭
১৮ ১১ পশ্চাতে হাত মিলান। ১৮
১৯ ১২ সম্মুখে মুষ্টি নিক্ষেপ। ১৯
২০ ১৩ ঊর্দ্ধে মুষ্টি নিক্ষেপ। ২০
২১ ১৪ হাত ঘুরান। ২১
২২ ১৫ পায়ের অঙ্গুলি দ্বারা ভূমি স্পর্শ করিয়া দাঁড়ান। ২২
২৩ ১৬ গুল্‌ফ দ্বারা পশ্চাৎ-দেশ স্পর্শন। ২৩
২৪ ১৭ জানু দ্বারা বক্ষঃস্থল স্পর্শন। ২৪
২৫ ১৮ লম্ফ দিয়া গুলফ দ্বারা পশ্চাৎদেশ স্পর্শন। ২৫
২৬ ১৯ জানু দ্বারা ভূমি স্পর্শন। ২৬
২৭ ২০ একটী জানুর উপর অবস্থিতি। ২৭
২৮ ২১ বাম জানু দ্বারা ভূমি স্পর্শন। ২৮
২৯ ২২ প্রকারান্তরে জানু দ্বারা ভূমি স্পর্শন। ২৯
৩০ ২৩ প্রণাম করা। ৩০
৩১ ২৪ উপবেসন। ৩১
৩২ ২৫ প্রকারান্তরে উপবেসন। ৩২
৩৩ ২৬ শূন্যে দুই পা কাওড়া দেওয়া। ৩৩
৩৪ ২৭ পাদদ্বারা হস্ত স্পর্শন। ৩৪
৩৫ ২৮ শূন্যে পদ প্রসারণ। ৩৫
৩৬ ২৯ যষ্টি উল্লঙ্ঘন পূর্ব্বক লম্ফন। ৩৬
৩৭ ৩০ দুই হস্ত মধ্যে লম্ফন। ৩৭
৩৮ প্যারেলেল বার। ৩৮
৩৯ ৩১ প্যারেলেল বারের উপর আরোহণ। ৩৯
৪০ ৪২ প্যারেলেল বারে দোলন। ৪০
৪১ ৩৩ প্যারেলেল বারে হস্ত দ্বারা গমন। ৪১
৪২ ৩৪ প্যারেলেল বারে ইংরাজ (L) এল্‌ অক্ষর হওয়া। ৪২
৪৩ ৩৫ প্যারেলেল বারের উপর উপবেসন। ৪৩
৪৪ ৩৬ প্যারেলেল বারে প্রকারান্তরে উপবেসন। ৪৪
৪৫ ৩৭ বক্ষঃস্থল প্যারেলেল বারের সমান উচ্চ করিয়া রাখা। ৪৫
৪৬ ৩৮ প্যারেলেল বারের উপর লম্ফন। ৪৬
৪৭ ৩৯ প্যারেলেল বারের সমান্তর হওয়া। ৪৭
৪৮ ৪০ বারের উপর দণ্ডায়মান হওয়া। ৪৮
৪৯ ৪১ প্যারেলেল বারে বাজি করা। ৪৯
৫০ ৪২ প্যারেলেল বারে হস্ত পদ সংলগ্ন করিয়া শরীর ঝুলাইয়া রাখা। ৫০
৫১ ৪৩ প্যারেলেল বারের এক বার হইতে হস্ত লইয়া অন্য বার স্পর্শ করা। ৫১
৫২ হরিজণ্ট্যাল বার। ৫২
৫৩ ৪৪ সমস্ত অঙ্গুলি উপরে রাখিয়া হরিজণ্ট্যাল বারের সম্মুখপার্শ্ব ধরা। ৫৩
৫৪ ৪৫ সমস্ত অঙ্গুলি উপরে রাখিয়া হরিজণ্ট্যাল বারের পশ্চাৎ পার্শ্ব ধরা। ৫৪
৫৫ ৪৬ হস্তের বৃদ্ধাঙ্গুষ্ঠ স্বতন্ত্র করিয়া হরিজণ্ট্যাল বারের সম্মুখ ধরা। ৫৫
৫৬ ৪৭ বৃদ্ধাঙ্গুষ্ঠ স্বতন্ত্র করিয়া হরিজণ্ট্যাল বারের পশ্চাৎ পার্শ্ব ধরা। ৫৬
৫৭ ৪৮ হরিজণ্ট্যাল বারে দোলন। ৫৭
৫৮ ৪৯ হরিজণ্ট্যাল বার ধরিয়া গমন। ৫৮
৫৯ ৫০ হরিজণ্ট্যাল বারে বক্ষঃস্থল সংলগ্ন করণ। ৫৯
৬০ ৫১ প্রকারান্তরে হরিজণ্ট্যাল বার ধরিয়া দোলন। ৬০
৬১ ৫২ বৃহৎ চক্র। ৬১
৬২ ৫৩ পদ দ্বারা হরিজণ্ট্যাল বার স্পর্শ করা। ৬২
৬৩ ৫৪ হরিজণ্ট্যাল বারের উপর বেগে আরোহণ করা। ৬৩
৬৪ ৫৫ হরিজণ্ট্যাল বারে বাজী করণ। ৬৪
৬৫ ৫৬ হরিজণ্ট্যাল বার প্রদক্ষিণ। ৬৫
৬৬ ৫৭ হরিজণ্ট্যাল বারে ইংরাজী (L.) এল্‌ অক্ষর হওয়া। ৬৬
৬৭ ৫৮ হাত ও হাঁটুদিয়া হরিজণ্ট্যাল বার প্রদক্ষিণ। ৬৭
৬৮ ৫৯ হস্ত পদ হরিজণ্ট্যাল বারে সংলগ্ন করিয়া শরীর ঝুলান। ৬৮
৬৯ ৬০ হরিজণ্ট্যাল বারে ফড়িঙ হওয়া। ৬৯
৭০ ৬১ হরিজণ্ট্যাল বারের উপর দাঁড়ান। ৭০
৭১ ৬২ হরিজণ্ট্যাল বারে জানু সংলগ্ন করিয়া ঝোলা। ৭১
৭২ ৬৩ হরিজণ্ট্যাল বারে পায়ের পাতা সংলগ্ন করিয়া ঝোলা। ৭২
৭৩ ৬৪ হরিজণ্ট্যাল বারে কনুই স্থাপন। ৭৩
৭৪ ৬৫ ওষ্ঠ দ্বারা হরিজণ্ট্যাল বার স্পর্শন। ৭৪
৭৫ ৬৬ মাস্তুল বা শুপারি গাছে আরোহণ। ৭৫
৭৬ ৬৭ প্রকারান্তরে মাস্তুলে আরোহণ। ৭৬
৭৭ অশুদ্ধ সংশোধন। ৭৭